চীনকে ‘হামলাবাজ’ বললো আমেরিকা

চীনকে ‘হামলাবাজ’ বললো আমেরিকা

গালওয়ানে ভারত-চীন সংঘর্ষে প্রথম দিকে চুপ থাকলেও অবশেষে বিষয়টি নিয়ে পরপর কড়া প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে আমেরিকা। এক দিকে চীনা সেনাদের হামলায় হত ভারতীয় জওয়ানদের প্রতি সমবেদনা জানালেন মার্কিন বিদেশসচিব মাইক পম্পেয়ো। অন্যদিকে, গোটা সংঘর্ষের পিছনে চীনের জমি দখলদারীর নীতির দিকেই আঙুল তুলেছে ওয়াশিংটন।

ভারতে এখন যে ভাবে চীনা পণ্য নিষিদ্ধ করার কথা আলোচনা হচ্ছে, তাকেও স্বাগত জানিয়েছে আমেরিকা। নিজেদের দেশেও চীনকে বাণিজ্যিক দিক থেকে পুরোপুরিভাবে বিচ্ছিন্ন করার বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে তা কতটা কার্যকর করা যাবে, তা নিয়ে সংশয় রয়েছে।

লাদাখ সীমান্তের অশান্তি ঘিরে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার পরিস্থিতি উত্তপ্ত। এর মধ্যেই আমেরিকার হাওয়াই দ্বীপপুঞ্জে মার্কিন বিদেশসচিব মাইক পম্পেয়োর সঙ্গে বৈঠক হয় শীর্ষ চীনা কূটনীতিক ইয়াং জিয়েচি-র। সেই বৈঠকের কয়েক ঘণ্টা পরে পম্পেয়ো টুইট করে ২০ জন ভারতীয় সেনার মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ করেন। শোক জানিয়েছেন ভারতে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত কেনেথ জাস্টার এবং ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূত ইমানুয়েল লেন্যাঁ-ও।

তবে জিয়েচি-পম্পেয়ো বৈঠকে লাদাখ প্রসঙ্গ উঠেছে কি না, তা নিয়ে মুখে কুলুপ দু’পক্ষেরই। এর আগে বৃহস্পতিবার মার্কিন সেনেটের বিদেশনীতি সংক্রান্ত আলোচনায় লাদাখ প্রসঙ্গ উঠলে চীনকে তুলোধনা করেন মার্কিন সেনেটর মিচ ম্যাকনেল।

তিনি বলেন, ১৯৬২-র যুদ্ধের পরে স্থলভাগে এটাই দু’দেশের মধ্যে সবচেয়ে বড় সংঘর্ষ। বোঝা যাচ্ছে, জমি দখল করতে চীনা বাহিনীই সংঘর্ষে উস্কানি জোগায়।

তার কথায়, আন্তর্জাতিক নিয়ম-শৃঙ্খলাকে তুড়ি মেরে চীন যে গোটা দুনিয়ার নকশা পাল্টে দেওয়ার চেষ্টা করছে, তা বোঝার জন্য এর চেয়ে ভাল ইঙ্গিত পেত না গোটা বিশ্ব।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2019 doinikprovateralo.Com
Desing & Developed BY Md Mahfuzar Rahman