বাসস্ট্যান্ডে ঘুমানো সেই ছেলেটিই আজ বিশ্বের দ্বিতীয় ধনী অভিনেতা

বাসস্ট্যান্ডে ঘুমানো সেই ছেলেটিই আজ বিশ্বের দ্বিতীয় ধনী অভিনেতা

বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খান। সবাই তাকে একজন বড় অভিনেতা হিসেবেই চেনেন। কিন্তু অনেকেই হয়তো জানেন না যে, কিভাবে তিনি অল্প অল্প করে ক্ষুদ্র ও নগন্য একজন মানুষ থেকে আজকের কিং খান হয়ে উঠেছেন!

শৈশবে বাবা-মায়ের সাথে দিল্লির একটি ভাড়া বাসায় বসবাস করতেন শাহরুখ খান। শাহরুখ স্কুলে পড়াশোনায় যেমন দুর্দান্ত ছিলেন, তেমনি উজ্জ্বল ছিলেন হকি ও ফুটবলেও। এই দুই খেলায় শাহরুখ ছিলেন অনবদ্য। হয়তো সেই ছাপটাই পাওয়া গেছে ‘চাক দে ইন্ডিয়ায়।’

কলেজ জীবনেই শাহরুখের মাথায় চেপে বসে অভিনয়ের ভুত। তা এমন জোরালোভাবেই চাপে যে মাস্টার্সের মাঝপথেই তিনি পড়াশুনা ছেড়ে থিয়েটারে যোগ দেন। কিন্তু যার ভাগ্যের লিখন খারাপ তার সবদিক থেকেই যেন ‘খারাবি’ আসতে থাকে। সেই সময় তার বাবা ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। তার কিছুদিন পরে মা-ও পৃথিবী ছেড়ে বিদায় নেন।

যেন অভাগা যেদিকে চায়, সাগর শুকায়ে যায়। এমন অবস্থায় শাহরুখ খান দারুণ অর্থ সংকটে পড়েন। যার ফলে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপস্থাপনের কাজ শুরু করেন। যেখানে তিনি পেতেন মাত্র ৫০ রুপি। শাহরুখ বলেন, ‘ সিনেমায় অভিনয় করার লক্ষ্য নিয়ে যখন আমি মুম্বাইয়ে আসি তখন আমার থাকার জায়গা নেই, খাবার নেই, কোনো টাকাপয়সা নেই।’

এসময় তিনি টিভি সিরিয়ালের ছোট ছোট চরিত্রে কাজ করা শুরু করেন। শাহরুখের নিকট তখন এটাই ছিল অনেক কিছু। এরপর শাহরুখ ‘কাভি হা, কাভি না’ নামের একটি সিনেমায় প্রথমবারের মতো কাজ করেন এবং সেখান থেকে ২৫ হাজার রুপি পান। নিজের ছবি মুক্তির দিন নিজেই ছবির টিকেট ক্রয় করেন। সে সময়ও তিনি মুম্বাইয়ের বাসস্ট্যান্ড ও সমুদ্র সৈকতের ধারে ঘুমাতেন।

কিন্তু ১৯৯৩ সালটা কেবল শাহরুখের ক্যারিয়ারের মোড়ই ঘুরিয়ে দেয় না, বলতে গেলে পুরো জীবনটাই পালটে দেয়। পাঁচ বছরের সংগ্রামী জীবনের পর মুক্তি পায় ছবি ‘দিওয়ানা’। এই ছবিতে দিব্যা ভারতী’র বিপরীতে ঋষি কাপুরের সঙ্গে প্যারালাল চরিত্রে অভিনয় করেন শাহরুখ।

ছবি শুধু শাহরুখের কারণেই ‘সুপার ডুপার বামপার’ হিট হয়ে যায়। এই ছবির প্রতিটি গান শুধু ভারত নয় গোটা উপমহাদেশজুড়ে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে যায়। ১৯৯৩ সালের পরেও দীর্ঘ সময় জুড়ে ছিল ‘দিওয়ানা’র উন্মাদনা।

এই ছবির মাধ্যমেই তিনি সেরা অভিষেকের পুরস্কার জিতে নেন। এ বিষয়ে কিং খান বলেন, আমি যতটা না সৃজনশীল অভিনয়ের জন্য ছবিটিতে সাইন করেছিলাম, তারচেয়ে বেশি প্রয়োজন ছিল আমার অভাব ঘোচানো।

আর এরপরের ঘটনা তো সবারই জানা। আজ শাহরুখ খান শুধু বলিউডের কিং খানই নন, তিনি বিশ্বের সেরা দ্বিতীয় ধনী অভিনেতা। ৫৪ বছর বয়সী এই অভিনেতা এরইমধ্যে জিতেছেন ১৪টি ফিল্মফেয়ার পুরস্কারসহ ৮০টিরও বেশি পুরস্কার। বর্তমানে তার সম্পদের পরিমাণ ৬০০ মিলিয়ন ডলার। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় পাঁচ হাজার ৮৮ কোটি ৭৪ লাখ টাকারও বেশি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2019 doinikprovateralo.Com
Desing & Developed BY Md Mahfuzar Rahman