‘মু’সলিমদের ও’পর নি’র্যাতন ব’ন্ধ না হলে চীনাদের মার্কিন ভিসা বন্ধ’- মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

‘মু’সলিমদের ও’পর নি’র্যাতন ব’ন্ধ না হলে চীনাদের মার্কিন ভিসা বন্ধ’- মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

চীনের পূর্ব তুর্কমেনিস্তান এর জিনজিয়াং প্রদেশের উইঘুর মু’সলমানদের ও’পর নি’র্যাতন বন্ধ না করা পর্যন্ত চীনা কর্মকর্তাদের ভিসা বন্ধ করার ঘোষণা দিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও এক টুইটবার্তায় এ ঘোষণা দেন।মি. পম্পেও টুইটে বলেন, জিনজিয়াং থেকে মু’সলিম ও তাদের সংস্কৃতি মুছে দিতে চীন জো’রপূর্বক দশ লাখ মু’সলিম নাগরিককে নি’ষ্ঠুরভাবে কনসেন্ট্রেশন ক্যা’ম্পে অ’বরুদ্ধ করে রেখেছে।

চীনকে অবশ্যই তাদের দ’মননীতি ও নজরদারির অতিসত্তর বন্ধ করতে হবে। একইসঙ্গে চীনের মু’সলিমদের মু’ক্তি দিতে হবে ও তাদের বিদেশ ভ্রমণের ও’পর নি’ষেধাজ্ঞা উঠিয়ে দিতে হবে।মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প চীনের ২৮টি নজরদারি প্রতিষ্ঠানের ও’পর নি’ষেধাজ্ঞা আরোপের পরদিনই চীনা কর্মকর্তার ভিসা বন্ধের এমন ঘোষণা দিলেন পম্পেও। এর ফলে দীর্ঘদিন ধরে মার্কিন-চীন বাণিজ্যিক যু’দ্ধ নতুন মাত্রা লাভ করতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

আরেক বিবৃতিতে পম্পেও আরোও বলেন, চীনের সব সরকারি কর্মকর্তা ও ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট দলের কর্মকর্তা যারা উইঘুর মু’সলমানদের দ’মন-নি’পীড়নের সঙ্গে জ’ড়িত তাদের ভিসা বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। এছাড়াও জিনজিয়াং প্রদেশের কাজাখ ও অন্যান্য সং’খ্যালঘু মু’সলিমদের ওপর অ’ত্যাচারে জ’ড়িত ব্যক্তিদেরও ভিসা দেয়া হবে না।
দিনাজপুরের পার্বতীপুরে চকলেটের প্রলোভন দেখিয়ে সাড়ে ৩ বছরের শিশুকে ধ’র্ষণের পর হ’ত্যা করা হয়েছে। এই ঘটনায় পু’লিশ ১ জনকে গ্রে’ফতার করেছে। ধ’র্ষক আমজাদ হোসেন (২২) পলাকত রয়েছে। রবিবার (১ ডিসেম্বর) সকালে লা’শ ম’য়নাত’দন্তের জন্য দিনাজপুরের এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

নি’হত শিশুর নাম আবিদা সুলতানা মীম। সে পাবীপুর উপজে’লার রামপুর ইউনিয়নের রঘুনাথপুর মধ্য ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের আরিফুল ইসলামের মেয়ে। তার বয়স সাড়ে ৩ বছর। শনিবার রাত ৯ টায় পার্বতীপুর উপজে’লার রামপুর ইউনিয়নের রঘুনাথপুর মধ্য ডাঙ্গাপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নি’হত শিশুর মা নাসরিন জাহান সাথী জানায়, ৩০ নভেম্বর শনিবার বিকেলে আবিদা সুলতানা মীম বাড়ি থেকে খেলতে গিয়ে আর ফিরেনি। অনেক খোঁজাখুঁজির পর না পেয়ে এলাকায় মাইকিং করা হয়। রাত ৯ টার দিকে একই এলাকার রাশেদুল ইসলামের ছেলে জিহাদ (৫) এর কথা শুনে শিশু আবিদা সুলতানা মীম প্রতিবেশী আমিনুল ইসলামের বাড়ীতে রক্তাত্ত অবস্থায় পড়ে আছে বলে জানতে পারে তারা।

এ সময় পু’লিশ কে খবর দিলে পু’লিশ ও এলাকাবাসী দরজা ভেঙ্গে টেবিলের নিচ থেকে র’ক্তাক্ত অবস্থায় শিশুটিকে উ’দ্ধার করে। দ্রুত তাকে পার্বতীপুর উপজে’লা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আলম মিয়া জানান, শিশুটি হাসাপাতালে নিয়ে আসার আগেই মৃ’ত্যু করণ করেছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2019 doinikprovateralo.Com
Desing & Developed BY Md Mahfuzar Rahman