২ লাখ ৫ হাজার ১৪৫ কোটি টাকার এডিপি অনুমোদন

২ লাখ ৫ হাজার ১৪৫ কোটি টাকার এডিপি অনুমোদন

আগামী ২০২০-২১ অর্থবছরের জন্য পরিবহন, শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও কৃষি খাতকে গুরুত্ব দিয়ে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির (এডিপি) অনুমোদন দিয়েছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদ (এনইসি)।

মঙ্গলবার এনইসি সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় এডিপির এ চূড়ান্ত অনুমোদন দেয়া হয়।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সভায় যোগ দেন।

পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান জানান, স্বায়ত্তশাসিত সংস্থাগুলোর জন্য ৯ হাজার ৪৬৬ কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে এবং এর ফলে এডিপির পুরো আকার দাঁড়িয়েছে ২ লাখ ১৪ হাজার ৬১১ কোটি টাকা।

মূল এডিপির ২ লাখ ৫ হাজার ১৪৫ কোটি টাকার মধ্যে ১ লাখ ৩৪ হাজার ৬৪৩ কোটি টাকা অভ্যন্তরীণ উৎস থেকে এবং বিদেশি উৎস থেকে ৭০ হাজার ৫০২ কোটি টাকার সংস্থান করা হবে।

স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের ৯ হাজার ৪৬৬ কোটি টাকার মধ্যে অভ্যন্তরীণ উৎস থেকে ৫ হাজার ৫৭৮ কোটি এবং বিদেশি উৎস থেকে ৩ হাজার ৮৮৮ কোটি টাকার সংস্থান হবে।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের ৮৯ প্রকল্পসহ আগামী অর্থবছরের মোট উন্নয়ন প্রকল্পের সংখ্যা ১ হাজার ৬৭৩ হবে।

এডিপির আওতায় ১ হাজার ৫৮৪টি প্রকল্প থাকছে এবং এর মধ্যে ১ হাজার ৪৫৬টি বিনিয়োগ প্রকল্প, ১২৭টি প্রযুক্তি সহায়তা প্রকল্প এবং বাকিগুলো জেডিসিএফ এর অর্থায়ন করা প্রকল্প।

খাতভিত্তিক সর্বোচ্চ বরাদ্দ দেয়া হয়েছে পরিবহনে। এ খাতে প্রায় ৫২ হাজার ১৮৩ কোটি (২৫ দশমিক ৪৪ শতাংশ) টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। এরপর ধারাবাহিকভাবে ভৌত পরিকল্পনা, পানি সরবরাহ ও গৃহায়ণ খাতে প্রায় ২৫ হাজার ৭৯৫ কোটি (১২ দশমিক ৫৭ শতাংশ), বিদ্যুতে প্রায় ২৪ হাজার ৮০৪ কোটি (১২ দশমিক ০৯ শতাংশ), শিক্ষা ও ধর্ম খাতে ২৩ হাজার ৩৯০ কোটি (১১ দশমিক ৪০ শতাংশ), বিজ্ঞান, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি খাতে প্রায় ১৮ হাজার ৪৪৮ কোটি (৮ দশমিক ৯৯ শতাংশ), গ্রামীণ অর্থনীতি ও পরিবার কল্যাণ খাতে প্রায় ১৩ হাজার ৩৩ কোটি (৬ দশমিক ৩৫ শতাংশ), কৃষিতে প্রায় ৮ হাজার ৩৮২ কোটি (৪ দশমিক ০৯ শতাংশ), পানি সম্পদে প্রায় ৫ হাজার ৫২৭ কোটি (২ দশমিক ৬৯ শতাংশ) এবং জনপ্রশাসনে প্রায় ৪ হাজার ৪৮ কোটি (১ দশমিক ৯৭ শতাংশ) টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। স্থানীয় সরকার বিভাগ সর্বাধিক বরাদ্দ পাবে ৩১ হাজার ১৩১ কোটি টাকা, এরপর সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ ২৪ হাজার ৮২৫ কোটি টাকা, বিদ্যুৎ বিভাগ ২৪ হাজার ৮০৪ কোটি টাকা, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় ১৭ হাজার ৩৮৯ কোটি টাকা, রেলপথ মন্ত্রণালয় ১২ হাজার ৯৯১ কোটি টাকা, স্বাস্থ্যসেবা বিভাগ ১০ হাজার ৫৪ কোটি টাকা, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক বিভাগ ৯ হাজার ৮৬৫ কোটি টাকা, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা বিভাগ ৯ হাজার ৪০৪ কোটি টাকা, সেতু বিভাগ ৭ হাজার ৯৭৩ কোটি টাকা এবং পানিসম্পদ মন্ত্রণালয় ৬ হাজার ২৬৯ কোটি টাকা পাবে।

বিদায়ী অর্থবছরে স্বায়ত্তশাসিত সংস্থাগুলো ছাড়াই প্রকল্পের সংখ্যা ছিল ১ হাজার ৭৪৪টি। আর এডিপির আকার ছিল ২ লাখ ২ হাজার ৭২১  কোটি টাকা, তবে পরে তা সংশোধন করে ১ লাখ ৯২ হাজার ৯২১ কোটি টাকা করা হয়।- ইউএনবি

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2019 doinikprovateralo.Com
Desing & Developed BY Md Mahfuzar Rahman