৯ বাসে আগুন বিএনপি ও তার দোসরদের বৃহত্তর ষড়যন্ত্রের অংশ: তথ্যমন্ত্রী

৯ বাসে আগুন বিএনপি ও তার দোসরদের বৃহত্তর ষড়যন্ত্রের অংশ: তথ্যমন্ত্রী

রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে গতকাল ৯টি বাসে অগ্নিসংযোগ করে দুর্বৃত্তরা। রাজধানীর তোপখানা রোডে দাউ দাউ করে পুড়ছে একটি বাস -ভোরের কাগজ

‘বাসে অগ্নিসংযোগ, গবেষণার নামে টিআইবি’র রাজনৈতিক প্রতিবেদন ও বিভিন্ন মহলের উস্কানিমূলক বক্তব্য বিএনপি ও তার দোসরদের দেশকে অস্থিতিশীল করার বৃহত্তর ষড়যন্ত্রেরই অংশ’ বলেছেন তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।

শুক্রবার (১৩ নভেম্বর) দুপুরে ঢাকার মিন্টু রোডে সরকারি বাসভবনে বৃহস্পতিবার রাজধানীতে বেশ কয়েকটি বাসে অগ্নিসংযোগের ঘটনা নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন। এসময় তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘প্রকৃতপক্ষে দেশে রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা বিরাজ করছে, অত্যন্ত দক্ষতার সাথে করোনা মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্ব বিশ্বব্যাপী প্রশংসিত হচ্ছে, মহামারির মধ্যে ধ্বনাত্মক অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির হাতেগোনা ক’টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশ স্থান করে নিয়েছে।

তিনি বলেন, এই পরিস্থিতিতে দেশকে অস্থিতিশীল করার একটি বৃহত্তর ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার বাসে আগুন দেয়া হয়েছে। এই ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবেই টিআইবি রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে একটা প্রতিবেদন দিয়েছে, বিভিন্ন মহল থেকে উস্কানিমূলক বক্তব্য দেয়া হচ্ছে এবং বাস পোড়ানোতে যে বিএনপি ও তাদের দোসররা জড়িত, তা সহজেই অনুমেয়।’

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের মন্তব্য ‘নির্বাচনে কারচুপি আড়াল করতেই বাসে আগুন’ এর প্রত্যুত্তরে ড. হাছান বলেন, ‘অতীতে কারা এভাবে বাস পুড়িয়েছে, কিভাবে পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করে শতশত মানুষকে পুড়িয়ে হত্যা করেছে, দেশবাসী তা ভালোভাবেই জানে। পুলিশের প্রাথমিক তদন্তেও দেখা গেছে, ২০১৩-১৪ সালে যেভাবে যাত্রীবেশে বাসে উঠে আগুন ধরিয়ে দেয়া হয়েছিল, গতকাল যে নয়-দশটি বাস পোড়ানো হয়েছে, তার মিল আছে। এবং প্রথম বাসটি, একটি সরকারি প্রতিষ্ঠানের বাস পোড়ানো হয়েছে নয়া পল্টনে বিএনপি কার্যালয়ের সামনে। সুতরাং এ ঘটনার সাথে বিএনপি ও তাদের মিত্রদের সংশ্লিষ্টতা আনায়াসে অনুমেয়।’

‘মির্জা ফখরুল সাহেব শাক দিয়ে মাছ ঢাকার অপচেষ্টা করছেন, যাতে কোনো লাভ হবেনা’ বলেন হাছান মাহমুদ। দ্ব্যর্থহীন ভাষায় তথ্যমন্ত্রী বলেন, অতীতে ২০১৩-১৪ সালে যেমন এধরনের নাশকতা সরকার কঠোরহস্তে দমন করেছে, এবারও জনগণকে সাথে নিয়ে এধরণের নাশকতা কঠোরহস্তে দমনে সরকার বদ্ধপরিকর।

একইসাথে এধরণের অপতৎপরতা সম্পর্কে সতর্ক থাকতে ও সন্দেহজনক কিছু দেখলে, সাথে সাথে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর নজরে আনার জন্য জনগণের প্রতি আহবান জানান ড. হাছান। দেশে শান্তি ও স্থিতিশীলতা বিনষ্টকারী কোনো গুজব বা ঘটনার বিষয়ে সতর্কতা অবলম্বনের জন্য তথ্য মন্ত্রণালয় থেকে ইতোমধ্যেই সকল গণমাধ্যমের সাহায্যে দেশবাসীকে অনুরোধ করা হয়েছে, জানান তথ্যমন্ত্রী।

সাংবাদিকরা ‘বাস পোড়ানোর ঘটনা নিয়ে বিএনপির দু’জন নেতার একটি ফোনালাপের অডিও ফাঁসে’র বিষয়ে প্রশ্ন করলে করলে মন্ত্রী ড. হাছান বলেন, ‘অডিওবার্তা এটাই প্রমাণ করে যে, এই ঘটনার সাথে তারা যুক্ত। এবং মির্জা ফখরুল সাহেব এবিষয়ে একটি সত্যি কথা বলেছেন যে, এটি পূর্বপরিকল্পিত। আসলে মির্জা ফখরুল সাহেবরা পূর্বপরিকল্পনা করেই এঘটনা ঘটিয়েছেন।’

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2019 doinikprovateralo.Com
Desing & Developed BY Md Mahfuzar Rahman